আজ ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং

করোনা আতঙ্ক ব্যাংকার পরিবারে

 

এডভোকেট জহির উদ্দিন লিমন

 

গত ২২ মার্চ থেকে পুরোপুরি হোম কোয়ারান্টাইনে আছি।বাসার নীচেও নামি নাই । প্রতিদিন এক অজানা আশংকায় থাকি। আমার সহধর্মিণী আনুভা আরীবার আম্মু একটি প্রাইভেট ব্যাংকে জব করে। প্রতিদিন সকালে বাসা থেকে বের হওয়ার সময় বলে দোয়া করো। শুধু মাথাটা একটু নাড়াই। কিন্তুু সারাক্ষণ ছেলেমেয়ে নিয়ে বাসায় বসে আতঙ্কে থাকি প্রিয়তমার জন্য। সারা বাংলাদেশে করোনা পরিস্থিতিতে নতুন নতুন এলাকা লকডাউন করা হচ্ছে। প্রতিদিনই বাড়ছে করোনা রোগীর সংখ্যা। আর এই অবস্থায়ও আমার স্ত্রীসহ সকল ব্যাংকাররা নিয়মিত অফিস করছেনন। অফিসে যাওয়ার সময় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর নানা প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হচ্ছে। অনেকের আবার বাসা দূরে থাকায় কিছু পথ হেটে কিছু পথ রিকশায় করে যেতে হচ্ছে।

সীমিত পরিসরে ব্যাংকিং নাম দিয়ে ব্যাংক খোলা রেখে পুরো ব্যাংকার পরিবারকে এক বিপদের দিকে ঠেলে দিচ্ছেন। যারা অফিস করছেন তারা হয়তো সচেতন এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখছেন। কিন্তুু যারা সেবা নিতে আসছেনন তারা যে করোনা ভাইরাস বহন করছে না এই গ্যারান্টি কে দিবে? গ্রাহকের টাকা তোলার বেশী প্রয়োজন হলে বিভিন্ন বুথ থেকে এ টি এম কার্ডের মাধ্যমে তুলতে পারে। এছাড়া এ পরিস্থিতিতে মানুষ ব্যাংকে লেনদেন না করলে কারো খুব ক্ষতি হবে বলেও মনে হয় না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এপ্রিল মাসে করোনা পরিস্থিতি আরো প্রকট হতে পারে। এ সমস্ত বিষয় গুলো বিবেচনায় এনে অন্ততপক্ষে এই মাসে রাষ্ট্রের অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মতো সকল ব্যাংক বন্ধ ঘোষণা করে প্রতিটি ব্যাংকারকে করোনার ঝুঁকি থেকে বাঁচাতে এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের ভয় থেকে মুক্ত করতে মাননীয় অর্থমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ ব্যাংকেরর মাননীয় গভর্নর মহোদয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।
এডভোকেট জহির উদ্দিন লিমন
বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ