আজ ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৩শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

সাভারে গবাদি পশুর নকল ঔষদ কারখানায় র‍্যাবের অভিযান ২জনের সাজা

বিশেষ প্রতিনিধি : শামীম হোসেন

সাভারে একটি নকল গবাদী পশুর ঔষধ কারখানায় অভিযান চালিয়েছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় অবৈধ কারখানার মালিকসহ দুই জনকে ছয় মাসের করে কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে সেই সাথে কারখানাটির প্রায় বিশ লক্ষ টাকার নকল ঔষদ সামগ্রী পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল সাভার পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের উত্তর জামসিং এলাকায় এফ এস এগ্রোভেট ইন্ডাষ্ট্রিজ কারখানায় অভিযান চালায় র‌্যাব ৪ এর ভ্রাম্যমাণ আদালত।
র‌্যাব ৪ জানায়, প্রায় ১ মাস ধরে উত্তর জামসিং এলাকায় একটি টিনসেড বাড়ি ভাড়া নিয়ে ২ টি রুমে অবৈধ ভাবে নকল করে গরু, ছাগল, হাঁস, মুরগীর ঔষধ বানিয়ে বাজারে বিক্রি করে আসছিলো আশারুল ইসলাম টিংকু নামের এক ব্যক্তি। পরে র‌্যাব ৪ বিষয়টি গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই কারখানায় অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানে এসময় র‌্যাব সদর দপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আনিসুর রহমান অবৈধ ভাবে নকল করে গবাদী পশুর ঔষধ বানিয়ে বিক্রি করার অভিযোগে কারখানাটির মালিক আশারুল ইসলাম টিংকুকে (২৮) সে সাতক্ষিরা জেলার কলোরয়া থানার হুলহুলিয়া গ্রামের মৃত ইবাদুল সরদারের ছেলে ও কর্মচারী মশিউর রহমানকে (৩৮) সে মুন্সিগঞ্জ জেলার লৌহজং থানার কলমা গ্রামের মতিউর রহমানের ছেলে। তাদের উভয়কে ছয়মাস করে কারাদন্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। সেই সাথে কারখানারটি প্রায় বিশ লক্ষ টাকার নকল ঔষধ সামগ্রী পুড়িয়ে ফেলা দয়।
ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিসুর রহমান বলেন, উত্তর জামসিং এলাকায় গবাদি পশু ও হাঁস-মুরগির ওষুধ তৈরির কারখানা বানান। গ্রোজিংক, হাইগ্রোথ, সিপোকল ফোর্ট তৈরি করা হতো ওই কারখানায়।
ওই কর্মকর্তা জানান, অত্যন্ত নোংরা পরিবেশে টিনের ছাপড়ার দুটি কক্ষে  ওষুধ তৈরির বিভিন্ন কাঁচামাল মোড়ক, লেবেল এক সঙ্গে গাদাগাদি করে ফেলে রেখে সেখানেই শ্রমিকের মাধ্যমে ওষুধ তৈরি ও প্যাকিংয়ের কাজ চলছিল। নিয়ম অনুযায়ী কেমিস্ট্র/ভেটেরিনারিয়ান এর তত্তাবধানে এ ধরনের ওষুধ তৈরি বাধ্যতামূলক হলেও আশারুল ইসলাম নামের একজন অশিক্ষিত শ্রমিক সব কাজ পরিচালনা করছিলেন। কারখানায় প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি নেই, মিক্সার মেশিনটিও নষ্ট। প্লাস্টিকের বালতিতে কাঁচামাল নিয়ে হাত দিয়ে তা মিশিয়ে প্যাকেটে ভরে হিট মেশিনের মাধ্যমে প্যাকেট সিল করে তাতে লেবেল লাগিয়ে তৈরি হচ্ছিল এসব ভুয়া ওষুধ।
অভিযানে এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন র‌্যাব ৪ এর কোম্পানী কমান্ডার মেজর শিবলী মোস্তফা, সাভার পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মিনহাজ উদ্দিন মোল্লা, সাভার উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ফজলে রাব্বীসহ আরো অনেকে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ