আজ ২৭শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১০ই জুন, ২০২১ ইং

অসহায়দের মাঝে খাবার বিতরণ করলো চাঁদপুর জেলা পুলিশ

ইব্রাহীম খলীল সবুজ – চাঁদপুর প্রতিনিধিঃ

 

নোবে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতিতে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে অস্ত্র কিংবা লাঠি নয় এবার সাধারণ মানুষের পাশে খাবার নিয়ে ছুটে গেলো চাঁদপুর জেলা পুলিশ।
পুলিশের পক্ষ থেকে গতকাল সোমবার দুপুরে জেলা শহরের সোমবার সকালে শহরের কোড়ালিয়া সরকারি পৌর প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অন্তত ৩ শতাধিক দুস্থ ও অতিদরিদ্র পরিবারকে দেয়া হয় এ খাদ্য সহায়তা। খাদ্য সহায়তা পেয়ে বেশ খুশি হন চাঁদপুর পৌর এলাকার অসহায় এসব পরিবারগুলো।
এর আগে পুলিশ সদস্যরা শহরের কোড়ালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে সামাজিক দূরত্ব নিয়ে তৈরি করেন ৩শ’ বৃত্ত।
কিন্তু, তখনো স্থানীয়রা জানতেন না, লাঠি-অস্ত্র ফেলে বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্য কেন এখানে এমন অদ্ভুত কাজ করছেন।
সকালে এমন কাজের পর আরেক দল পুলিশ সেখানে হাজির। আশপাশে ছুটে গিয়ে তারা খুঁজতে শুরু করলেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে ঘরে আটকে পড়ে আছে ক’টি পরিবার। এখন তাদের জীবনযাপনই বা কেমন। দুই ঘণ্টার চেষ্টায় তিন শ পরিবার খুঁজে পেল পুলিশ। যারা খুব কষ্টে আছেন এবং মানবেতর জীবনযাপন করছেন।

এবার পাশের বিদ্যালয় মাঠে তৈরি করা বৃত্তের মধ্যে অবস্থান করতে ডাক পড়ে তাদের।
এ সময় ঘর থেকে ছুটে আসেন তালিকাভুক্ত পরিবারের মানুষজন।
নিরাপদ সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে তাদের দাঁড়াতে বলা হয়। তারপর তাদের প্রত্যেকে হাতে তুলে দেওয়া হয় ৫ কেজি মিনিকেট চাল, ২ কেজি আটা, দেড় কেজি ডাল, ২ লিটার সয়াবিন তেল, ২ কেজি আলু, ২ টি এন্টিসেপ্টিক সাবান।

চাঁদপুর পুলিশ সুপার মোঃ মাহবুবুর রহমান, পিপিএম (বার) নিজ হাতে এসব নিত্যপণ্য সামগ্রী বিতরণ করেন।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে পুলিশের নিজস্ব অর্থায়ন থেকে দুস্থ অতিদরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়ানোর সামান্য প্রয়াস মাত্র।

দুষ্টের দমন সৃষ্টের পালনের সঙ্গে মুজিববর্ষের অঙ্গীকার,
পুলিশ হবে জনতার।
এই মন্ত্র নিয়েই আমরা এই সময় আরো মানবিক হতে চেষ্টা করছি।
তিনি আরো বলেন, নেতিবাচক নয়, পুলিশ সম্পর্কে মানুষের ইতিবাচক ধারণা তৈরি করতে হবে।

এছাড়া তিনি আরো বলেন, একটি নির্দিষ্ট সময় শেষে মানুষ বাসার বাইরে বের হবার চেষ্টা করে। আমরা সে সকল মানুষকে ঘরে ফেরানোর চেষ্টা করছি। তবে সেটা মানবিক মূল্যবোধের মধ্যে থেকে পুলিশ কাজ করছে। জনগণের পুলিশ ও মানুষের সাথে কাজ করার বৈশিষ্টগুলো ইমপ্লিমেন্ট করে আমরা কাজ করছি।
বিশেষ করে মিডিয়ার সহযোগিতা থাকলে এ ক্ষেত্রে ইনশাল্লাহ আমরা সফলকাম হবো।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) জাহেদ পারভেজ চৌধুরী, অতিরিক্ত পুলিস সুপার (হেডকোয়াটার) আসাদুজ্জামান, চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার্স ইনচার্জ মোঃ নাসিম উদ্দিন, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্ল্যাহ।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ