আজ ৪ঠা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৮ই জুন, ২০২১ ইং

সাভার সদর ইউনিয়নে করোনা প্রতিরোধে গণসচেতনতায় মাইকিং

এইচ এম হুমায়ুন কবির (বিশেষ প্রতিনিধি)

 

বিশ্বজুড়ে মহামারি আকার ধারণ করে তান্ডব চালাচ্ছে নোভেল করোনা ভাইরাস । নিয়ন্ত্রনহীন এই ভাইরাসের প্রভাব থেকে নিজেদের নাগরিকদের নিরাপদ রাখতে লক ডাউন সহ বিভিন্ন পদক্ষেপ নিচ্ছে আক্রান্ত দেশগুলোর রাষ্ট্রযন্ত্র। ব্যতিক্রম ঘটেনি বাংলাদেশেও । এই মহামারীর মাধ্যমে সংক্রমিত হওয়া থেকে সাধারণ নাগরিকদের রক্ষা করতে সোশ্যাল ডিসটেন্স) সামাজিক দূরত্ব)হোম কোয়ারেন্টাইন(সঙ্গনিরোধ)
নিশ্চিতে কাজ করে যাচ্ছে পুলিশ,সেনাবাহিনী সহ রাষ্ট্রযন্ত্রের বিভিন্ন প্রশাসনিক শাখা। যার ধারাবাহিকতায় শহর কিংবা প্রত্যন্ত অঞ্চলের প্রত্যেকটি গ্রাম,ওয়ার্ড,ইউনিয়ন, থানা ও জেলা পর্যায়ে গণসচেতনতা তৈরির লক্ষে গঠন করা হয়েছে করোনা প্রতিরোধ কমিটি।

করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলা ও গণ সচেতনতা তৈরীর লক্ষ্যে সাভার সদর ইউনিয়নের গঠিত কমিটির মূল নেতৃত্বে রয়েছেন ইউনিয়নটির চেয়ারম্যান হাজী মোঃ সোহেল রানা। তার নেতৃত্বে সাভার সদর ইউনিয়নের প্রত্যেকটি ওয়ার্ডে গণসচেতনতায় করে দেয়া হয়েছে একটি করে কমিটি। জানা যায় হাজী মোহাম্মদ সোহেল রানার নির্দেশক্রমে গোটা ইউনিয়নটির সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করছেন ৭ নং ওয়ার্ড মেম্বার ও প্যানেল চেয়ারম্যান মোঃ আরিফ হোসেন । গণজমায়েত বন্ধ, সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত, সঙ্গনিরোধ ও গণসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষে দলীয় নেতৃবৃন্দ সহ করোনা প্রতিরোধে গঠিত কমিটির সদস্যদের নিয়ে দিনরাত দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন ইউনিয়নটির চেয়ারম্যান হাজী মোহাম্মদ সোহেল রানা।

রবিবার ২৯-০৩-২০২০ ইং গণসচেতনতা চালানোর সময় এই প্রতিবেদকের সাথে কথা হয় প্যানেল চেয়ারম্যান আরিফ হোসেনের সাথে। করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় সাভার ইউনিয়ন কী ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছে এমন প্রশ্নের উত্তরে আরিফ হোসেন জানান- মাইকিং করে সাধারন জনগণকে সচেতন ও সন্ধ্যা ছয়টার মধ্যে হসপিটাল ঔষুধের দোকান ছাড়া সব ধরনের বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান বন্ধে ব্যবস্থা নেয়াসহ ইউনিয়নটির সাধারণ ও হতদরিদ্র খেটে খাওয়া মানুষদের তালিকা প্রস্তুত করি। শুধুমাত্র মানবিক কারণে ইউনিয়নে সরকারিভাবে কোনো বরাদ্দ না থাকার পরেও হাজী মোহাম্মদ সোহেল রানা সহ ইউনিয়ন টির প্রত্যেকটি ওয়ার্ডের মেম্বারগন ব্যক্তিগত উদ্যোগে প্রস্তুতকৃত তালিকার হতদরিদ্র এই মানুষদের ঘরে ঘরে সাধ্যমত খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেয়ার চেষ্টা করি। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত এই মানবিক কার্যক্রম চালিয়ে যাবেন বলেও জানান তিনি। এ সময় তিনি জাতির এই ক্রান্তিলগ্নে সমাজের বিত্তবানদের অসহায় খেটে খাওয়া মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর অনুরোধ জানান।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ