আজ ১৩ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং

বরিশালের বস্তিতে ববি’র করোনা মোকাবিলায় পদাতিকের স্যানিটাইজার বিতরণ

খান ইমরান , বরিশাল প্রতিনিধি 

‘বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অর্থায়নে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় বরিশাল শহরের বস্তিতে দুস্থ পরিবারের মাঝে পদাতিকের হ্যান্ড স্যানিয়াটাইজার, হাত ধোয়ার সাবান ও মাস্ক বিতরন করা হয়।

কোভিড-১৯ এর ধ্বংস যজ্ঞের কাছে অসহায় হয়ে পড়েছে পুরো মানব সভ্যতা। WHO পরামর্শ দিচ্ছে ঘরের বাইরে বের না হতে বা বের হলেও বারবার হ্যান্ডওয়াশ বা সাবান দিয়ে হাত ধুতে। কিন্তু দিনমজুর ও অন্যান্য শ্রমজীবি মানুষের পক্ষে WHO এর পরামর্শ মেনে ঘরে বসে থা্কা কিংবা স্যানিটাইজার বা হ্যান্ডওয়াস কিনে হাত ধোয়াটা বিলাসিতার সামিল। ফলে সম্বলহীন এই অধিকারবঞ্চিত মানুষেরাই সবচেয়ে বেশি করোনা ঝুকিতে আছেন।

বিজ্ঞজনেরা তো পরামর্শ দিয়েই দায় সারছেন কিন্তু উপকরনগুলো সহজলভ্য না হওয়ায় সে পরামর্শ আর বাস্তবায়িয়ত হতে পারছে না। এই দুরাবস্থায় সামাজিক দায়িত্ববোধের জায়গা থেকেই পদাতিক এই দুস্থ মানুষের মাঝে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, সাবান ও মাস্ক বিতরনের উদ্যোগ নেয়।

জনগনের ট্যাক্সের টাকায় উচ্চশিক্ষা নিতে আসা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্ররাও যে এই দুর্দিনে হাত পা গুটিয়ে বসে থাকতে পারে না এই উপল্বদ্ধিকে সামনে রেখে গত ১৭ মার্চ থেকে শুরু হয় পদাতিকের তহবিল সংগ্রহের কাজ। ববির শিক্ষার্থীদের মাঝ থেকে সাড়াও পাওয়া যায় বেশ। ক্যাম্পাস বন্ধ থাকার পরেও মাত্র তিনদিনে পদাতিক তার পুর্বনির্ধারিত তহবিল সংগ্রহে সমর্থ হয়।
এর পর শুরু হয় স্যানিটাইজার প্রস্তুতির কাজ। আজ ২৩ মার্চ থেকে পদাতিকের স্বেচ্ছাসেবকেরা বরিশালের বিভিন্ন বস্তিতে পদাতিকের তৈরী করা স্যানিটাইজার ,মাস্ক ও সাবান বিতরন শুরু করে। স্বাস্থ্য উপকরন বিতরনের পাশাপাশি শুরু হয় জনসচেতনা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ক্যাম্পেইনিং এর কাজ।

গণমানুষের দুর্দিনে তাদের পাশে এসে দাড়ানোর জন্য ববির সকল শিক্ষার্থীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে পদাতিক( সামাজিক-সাংস্কৃতিক মঞ্চ)। আগামীতেও মানুষের দুর্দিনে ববি শিক্ষার্থীরা নিঃস্বার্থভাবে এগিয়ে আসবে এমনটাই প্রত্যাশা পদাতিকের। সবশেষে সকলকে নিরাপদে থাকতে এবং আশে পাশের মানুষকে সচেতন করতে অগ্রনী হতে আহ্বান জানানো হয় ।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ