আজ ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১লা মার্চ, ২০২১ ইং

করোনা ভাইরাস রোধে সাভারে জীবানু নাশক স্প্রে হাতে কয়েক যুবক

প্রিন্স ঘোস

 

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বাড়ার সাথে সাথে আতংক বাড়ছে অনেকগুণে । করোনা মোকাবেলায় জনসচেতনতার কথাও বলা হচ্ছে খুব করে কারন COVID-19 অনেক সংক্রামক একটি রোগ । তাই জীবাণু ছড়িয়ে পরা রোধ করতে ছবিঘর নামে একটি সংঠন কাজ করে যাচ্ছে সাভার, পল্লীবিদ্যুত ও নবিনগর এলাকায় । সকাল ৭.৩০ মিনিট , সবাই যখন ঘুম তখন একদল তরুণ সাধারণ জনগনের নিরাপত্তার জন্য রাস্তায় নেমেছে । সাভারে পল্লীবিদ্যুত ও নবিনগর এলাকায় বিভিন্ন ওভার ব্রিজে তারা জীবাণু নাশক ডিইনফ্যাকট্যান্ট মিক্সড ওয়াটার স্প্রে করেছে । প্রতিদিন কয়েকশত মানুষ এই সব ওভার ব্রিজ ব্যবহার করে আর অনেকেই ওভার ব্রিজের রেলিং এ হাত দেয় যার থেকে করোনা ভাইরাস খুব সহজে ছড়াতে পারে , তাই ছবিঘরের সদস্যরা সাভারের বিভিন্ন অভার ব্রিজের রেলিং এবং ব্রিজে ডিইনফ্যাকট্যান্ট মিক্সড ওয়াটার স্প্রে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে । শুধু ওভার ব্রিজ না রিকশা , বাস এবং অন্যান্য যানবাহনেও তারা এই জীবাণু নাশক স্প্রে করেছে।
এই প্রসঙ্গে রিপন পাটোয়ারি নামে এক ব্যাক্তি বলেন ‘’অনেকেই জানেন না কিভাবে জীবাণু মুক্ত থাকা যায় এবং অনেকেই এই ব্যপারে সচেতন নন । তাই ছবিঘরের এই উদ্যোগটা অনেক কার্যকরি একটা উদ্যোগ, এতে মানুষ অনেক উপকৃত হবে’’ ।
রাস্তায় সাধারণ মানুষকে তারা করোনা ভাইরাস নিয়ে বিভিন্ন সচেতনা মুলক টিপ্স দিয়েছে তারা এবং হাত ধোয়ার সঠিক পদ্ধিতিও দেখিয়েছে সাধারণ মানুষকে । করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক ব্যবহারের কথাও বলা হয়েছে কিন্তু বাজারে ওয়ান টাইম ইউজের জন্য মাস্ক বা সার্জিকাল পাওয়া এখন দুস্কর তাই টিসু পেপার দিয়ে কম খরচে বাসায় বসে মাস্ক বানানোর পদ্ধতিও তারা সাধারন মানুষকে দেখিয়ে দেয়।
এই প্রসঙ্গে রবিউল নামে একজন জানান ‘’ছবিঘর টিসু পেপার দিয়ে যেভাবে কম খরচে ওয়ানটাইম মাস্ক বানানো শিখিয়েছে তা আসোলেই অনেক উপকারি , যে তরুনগুলো দেশ ও মানুষকে ভালবেসে এই কাজ করে যাচ্ছে তাদের জন্য আমার ভালবাসা ও শুভকামনা ।

ছবিঘরের সভাপতি প্রিন্স ঘোষ জানান ‘’ এমন উদ্যোগ সবাইকে নিতে হবে তবেই দেশের এই সংকট মোকাবেলা করতে সহজ হবে । তিনি সবাইকে আহবান জানান যাতে সবাই নিজের যায়গা থেকে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন ভাবে চলে এবং নিজের ঘর ও পাশেপাশ পরিস্কার রাখে তবেই হয়তো আমরা এর থেকে মুক্তি পেতে পারি । তিনি আরো জানান সকল সেচ্ছাসেবী এবং ডাক্তাররা সাধারণ মানুষের জন্য রাস্তায় নেমেছে এবং এই বিপদ থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য কাজ করছে এবং তিনি আহবান জানান যাতে মানুষ অন্তত্য নিজেদের জন্য ঘরে থাকেন এবং সষ্টার কাছে পার্থনা জানান যাতে এই বিপদ থেকে সবাই খুব সিগরই পরিত্রান পেতে পারে’’।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ