আজ ২০শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা মার্চ, ২০২১ ইং

সেনবাগে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের মাধ্যমে তালিকা যাচাই-বাচাই করণের দাবীতে মানববন্ধন

ফখরুদ্দিন মোবারক শাহ রিপন,নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ

যাচাই-বাচাই এর দাবীতে জাতির সূর্যসন্তান বীরমুক্তিযোদ্ধাদের হয়রানির প্রতিবাদে আজ ২৫ জানুয়ারি সোমবার সকালে মানববন্ধন পালন করলেন- সেনবাগ উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভার বীরমুক্তিযোদ্ধাগণ।
সেনবাগ থানার মোড় ও উপজেলা চত্ত্বরে শান্তিপূর্ণ এ মানববন্ধন শেষে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের মাননীয়মন্ত্রী বরাবর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সাইফুল ইসলাম মজুমদারের মাধ্যমে স্মারক লিপি প্রদান করা হয়েছে।জাতির গর্বিত সন্তান বীরমুক্তিযোদ্ধাদের শান্তিপূর্ণ মানববন্ধনের সাথে একাত্বতা পোষন করে বক্তব্য রাখেন- সেনবাগ উপজেলা পরিষদের ভাইসচেয়ারম্যান- গোলাম কবির বিএ, উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতা- আলী আক্কাস রতন,উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ আহবায়ক- আ.স.ম জাকারিয়া আল-মামুন ও ৪নং কাদরা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক- মোঃ সোলাইমান। সেনবাগ ভাইসচেয়ারম্যান তার বক্তব্যে বলেন- ” মুক্তিযোদ্ধাদের যাচাই বাচাই এর নামে প্রতারনা শুরু হয়েছে। গোপনে দুই লক্ষ টাকা পর্যন্ত তারা চাইতেছে, যারা দুই লক্ষ টাকা দিতে পারবে তাদের নাম তালিকায় থাকবে। দুই লক্ষ টাকা না দিতে পারলে তালিকা থেকে নাম কর্তন করা হবে। এটি এক ধরনে বিরাট প্রতরণা”।তিনি আরো বলেন-“মাননীয় প্রধানন্ত্রী মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মানে ভুষিত করেছেন। অতচ অত্যান্ত দুঃখের বিষয় আজ এক শ্রেণির দালালচক্র মুক্তিযোদ্ধাদের ভেতরে ঢুকে জাতির শ্রেষ্ট সন্তানদের কলংকিত করছে এর যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি”। এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন, বীরমুক্তিযোদ্ধা- হাজী মোঃ ওবায়েদ উল্যাহ, আবদুল হালিম, ইকবাল হোসেনসহ প্রমূখ। মুক্তিযোদ্ধাদের দাবী, প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধা তালিকা যাচাই-বাচাই করা হোক।কোন ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা বা রাজাকারের মাধ্যমে যাচাই- বাচাই করলে মুক্তিযোদ্ধারা তা মেনে নেবেনা।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ