আজ ১৩ই আশ্বিন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২৩ ইং

বাহুবলে নির্যাতন: জড়িত সরকারী চাকুরীজিবীও

পলাশ পাল, বিশেষ প্রতিনিধি :
হবিগঞ্জের বাহুবলে কলেজছাত্রের হাত-পা বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় এক সরকারি চাকরীজিবও জড়িত
রয়েছেন। পুলিশ তার বিরুদ্ধে অনুসন্ধান করছে। যদিও মামলায় তাকে এজাহারভুক্ত আসামী করা হয়নি।
জড়িত ব্যক্তি হাজীপুর কমিউনিটি ক্লিনিকে কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার (chcp) হিসাবে কর্মরত আজিজুর রহমান মিশন। সরকারী চাকুরীর পাশাপাশি তিনি স্থানীয় পএিকায় কাজ করতেন।
অভিযোগ রয়েছে পত্রিকার কার্ড দেখিয়ে তিনি বাণিজ্যসহ বিভিন্ন অবৈধ কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে আসছেন।
গত শুক্রবার বাহুবল উপজেলার লামাতাশি ইউনিয়নে দ্বিমুড়া গ্রামে কলেজ ছাত্র ফয়সলের উপর মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের সাথে তার সম্পৃক্তা রয়েছে।
ফেসবুক সূত্রের ভিত্তিতে কমেন্ট পর্যালোচনা করে দেখা যায়, রাতে কলেজছাত্র ফয়সলের উপর যখন হামলা হয় তখন তিনি ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন। তিনি নিজে ডেগার বের করে ফয়সলের হাতে তুলে দিয়ে চোর আখ্যায়িত করে তার উপর মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করেন ও ভিডিও ধারন করেন।
পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে তিনি নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে বাড়িতে ফিরেন।
এর আগেও তিনি মিরপুর পাইলট স্কুল এন্ড কলেজে চাকুরীকালিন সময়ে শিক্ষার্থীদের হাতে লাঞ্ছিত হয়ে স্কুল থেকে পালিয়ে যেতে বাধ্য হন।
এ ব্যাপারে বাহুবল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের তত্বাবধায়ক ডা. বাবুল কুমার দাস বলেন, সরকারি চাকুরীর পাশাপাশি অন্য কোন চাকুরী করার সুযোগ নেই। তিনি পত্রিকার প্রতিনিধি হিসাবে জড়িত থাকার বিষয়ে আমার জানা নেই।
পুলিশের একটি বিস্বস্ত সূত্র জানিয়েছে- আজিজুর রহমান মিশন এজাহারভূক্ত আসামী না হলেও তার সম্পৃক্ততার বেশ বিছু তথ্য প্রমাণ পাওয়া গেছে। তাই তার বিষয়টি নিয়ে পুলিশ অনুসন্ধান করছে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ