আজ ৩রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জানুয়ারি, ২০২১ ইং

প্রতিপক্ষকে গুলি করে কারাগারে ইউপি চেয়ারম্যান শাহিন চৌধুরী

 

শেখ রেজাউল করিম রুবেল সুজানগর উপজেলা পাবনা প্রতিনিধি:

পাবনায় প্রতিপক্ষের ওপর প্রকাশ্যে গুলিবর্ষণ মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান শাহীন চৌধুরী ও তার ভাতিজা রবিন চৌধুরীকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।
গত মঙ্গলবার বিকালে পাবনার আমলি আদালত- ৬ এর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মিলন হোসেন এ আদেশ দেন। বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট বীর মুক্তিযোদ্ধা আজিজুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেন। শাহীন চৌধুরী সুজানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলার সাগরকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান।
মামলার বাদী সাগরকান্দী ইউনিয়ন যুবলীগের গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক হাশমত খলিফা জানান, ২০১৮ সালের ২৮ নভেম্বর তারিখে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে চেয়ারম্যান শাহীন চৌধুরী দলবল নিয়ে তার ওপর হামলা চালান। এক পর্যায়ে চেয়ারম্যান শাহীন চৌধুরীর নির্দেশে তার ভাতিজা রবিন চৌধুরী তাকে হত্যার উদ্দেশে প্রকাশ্যে গুলি চালান।
তিনি আরও জানান, ইউপি চেয়ারম্যান ও তার সহযোগীদের অবৈধ অস্ত্রের ঝনঝনাতি এলাকাবাসি ভীতসন্ত্রস্ত। ভয়ে এলাকার লোকজন তাদের বিরুদ্ধে মুখ খোলেন না।
গুলিটি তার পায়ে লাগায় তিনি গুরুতর আহত হলেও প্রাণে বেঁচে যান। এ ঘটনায় তিনি আমিনপুর থানায় ১৩ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছিলেন। পরে তার আবেদনের প্রেক্ষিতে মামলাটি পিবিআইতে (পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন) স্থানান্তর করা হয়।
পিবিআই পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফজলে এলাহী জানান, এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ছিলেন মো. আসাদুজ্জামান। পিবিআই তদন্ত শেষে ঘটনার সত্যতা পায়। সে মোতাবেক আদালতে সম্প্রতি চার্জশিট দাখিল করা হয়।
এদিকে, গত মঙ্গলবার মামলার শুনানির দিন ধার্য ছিল। এতে মামলার ১৩ আসামি আদালতে হাজির হন। আদালত মামলার ১১ আসামিকে জামিন দেন আর সাগরকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান শাহীন চৌধুরী ও তার ভাতিজা রবিন চৌধুরীকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ