আজ ২রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জানুয়ারি, ২০২১ ইং

নবীগঞ্জে ‘কবিরাজ’ সেজে যুবকের প্রতারনা

পলাশ পাল বিশেষ প্রতিনিধিঃ
নবীগঞ্জ উপজেলার ইমামবাড়ি বাজারে আহাদুর শাহ্ (২৩) নামে এক যুবক কবিরাজ সেজে সাধারণ মানুষের সাথে প্রতারণা করছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সহজ সরল মানুষদের বোকা বানিয়ে অভিনব কায়দায় হাতিয়ে নিচ্ছেন লাখ লাখ টাকা।
এলাকাবাসীর অভিযোগ, কয়েক বছর ধরে তিনি ইমাম বাড়ি বাজারে আস্তানা গড়েছেন। নিজস্ব দালালের মাধ্যমে জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে সহজ-সরল মানুষদের এনে তাবিজ, কবজ, পানি ও তেল পড়া, ঝাড়-ফোক দিয়ে থাকেন কৌশলে। তার আস্থানায় প্রতি শনিবার ও মঙ্গলবার জ্বীনের মাধ্যমে মানুষের বিভিন্ন সমস্যার প্রশ্নের উত্তর পাওয়ার আশায় এখানে এসে প্রতারিত হয়েছেন অনেক মানুষ।
সরজমিনে ভুক্তভোগিদের সাথে কথা বলে জানা যায়, আহাদুর মিয়া রোগ সারানোর নাম করে রোগীর কাছ থেকে ৫শ’ টাকা থেকে শুরু করে ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত হাতিয়ে নিচ্ছেন। মনের মানুষকে কাছে পাইয়ে দেয়ার কথা বলে যুবক-যুবতীদের কাছ থেকে হাতিয়ে নেয় টাকা।
পরিচয় গোপন রেখে আহাদুর শাহ্র সাথে কথা বলে জানা যায়- ২৪ ঘন্টার ভেতরে মনের মানুষকে কাছে এনে দেয়ার জন্য তার ফি ১ লাখ টাকা, ৪৮ ঘন্টার মধ্যে এনে দিলে ৫০ হাজার এবং ১৪ দিনের মধ্যে এনে দিলে ১১ হাজার ৫শ’ টাকা দিতে হয়।
খবর নিয়ে জানা গেছে, ইসলামি বা প্রাতিষ্ঠানীক কোন শিক্ষা নেই আহাদুর শাহ্। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা না থাকার বিষয়টি আহাদুর শাহ্ নিজেও স্বীকার করেছেন। এমনকি তিনি নিজের নামও লিখতে পারেন না।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যক্তি জানান, গত কয়েক বছরে আহাদুর শাহ্ তার ব্যবসার ডালপালা ছড়িয়েছেন চারপাশে। এখন শুধু হবিগঞ্জ জেলা নয়, বৃহত্তর সিলেট বিভাগের বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রতিদিন রোগি আসেন তার কাছে।
এক ভুক্তভোগী দম্পতি জানান, তাদের কোনো সন্তান না থাকায় আহাদুর শাহের কাছে চিকিৎসা নিতে আসেন। সন্তান পাইয়ে দেয়ার কথা বলে ১১ হাজার টাকা নিয়েছেন আহাদুর শাহ্। পরে আরও লাগবে বলে জানায়।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ