আজ ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৮শে নভেম্বর, ২০২১ ইং

পরমাণু বিজ্ঞানী ড. ফয়জুর রহমানের সাথে সেভ দ্য সোসাইটি দুই প্রতিনিধির সাক্ষাৎ

নিজস্ব প্রতিবেদক

 

২০ বছর ধরে অমর একুশে বইমেলায় হেঁটে হেঁটে নিজের বই ফেরি করে বিক্রি করা ৮৬ বছর বয়সী লেখক ড. ফয়জুর রহমান আল সিদ্দিকীর সঙ্গে সেভ দ্য সোসাইটি এন্ড থান্ডারস্টর্ম অ্যাওয়ারনেস ফোরামের দুজন প্রতিনিধি সাংবাদিক রাশিম মোল্লা ও রানা ভূঁইয়া সাক্ষাৎ করেছে। শুক্রবার বইমেলার বাংলা প্রকাশ প্যাভিলনে সাক্ষাৎ করেন। প্রবীণ এই পরমাণু বিজ্ঞানী ফয়জুর রহমানের জন্মস্থান ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলার চূড়াইন গ্রামে। নবাবগঞ্জের পরিচয় দেওয়ায় বেশ আগ্রহ সহকারে শত ব্যস্তার মাঝে আমাদের দুজনের সাথে কথা বলেন। সেভ দ্য সোসাইটি এন্ড থান্ডারস্টর্ম অ্যাওয়ারনেস ফোরামের কর্মপরিকল্পনা জনাব ফয়জুর রহমানকে জানানো হয়। তিনি আমাদের কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করেন। উল্লেখ্য সেভ দ্য সোসাইটি এন্ড থান্ডারস্টর্ম অ্যাওয়ারনেস ফোরামের পক্ষ থেকে যুব সমাজকে বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তোলার জন্য লাইব্রেরী স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে। এ বিষয়ে সমাজের বিত্তশালীদের এগিয়ে আসার আহব্বান জানানো হচ্ছে। সেই প্রেক্ষাপটে তিনি নবাবগঞ্জে সচেতনতামূলক একটি প্রোগ্রামে উপস্থিত থাকার সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন। প্রসংক্রমে তাঁর লেখা পরবর্তী বইয়ে জন্মভূমি নবাবগঞ্জের স্মৃতিচারণ তুলে ধরবেন বলে জানান। আজ সকাল থেকেই বাংলা প্রকাশ প্যাভিলিয়নে উপচে পড়া ভিড় ছিল। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত প্রবীণ পরমাণু বিজ্ঞানী ফয়জুর রহমানের সামাহিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া “বাঙালির সাফল্য ও ব্যর্থতা” বইটির ১০০০ কপি বিক্রি হয়েছে। সন্ধ্যার পর বইটি স্টকে না থাকায় অনেক পাঠককে ফিরে যেতে হয়েছে। তিনি নিজে প্রতিটি বইয়ে অটোগ্রাফ দিয়ে পাঠকের হাতে তুলে দেন।
এর আগে তিনি গত ২০ বছর ধরে বইটি ফটোকপি করে বিক্রি করতেন মেলায়। বইটি ফটোকপি করতে যে খরচ হতো, শুধু সেই টাকা নিয়ে বইটি বিক্রি করছিলেন। হেঁটে হেঁটে বই ফেরি করার বিষয়ে ড. ফয়জুর রহমান আল সিদ্দিক বলেন, ‘২০ বছর আগে প্রথম প্রকাশের পর বইটি নিয়ে আর কেউ আগ্রহ প্রকাশ করেনি। কেউ প্রকাশ না করলেও ফটোকপি করে আমি নিজেই বইট পাঠকের হাতে পৌঁছানোর চেষ্টা করেছি।’ এ নিয়ে গত কয়েকদিন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক প্রচার হয়েছে। এবার সেই বইটি প্রকাশের বিষয়ে সহযোগিতা করার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন নগদ’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক তানভীর আহমেদ মিশুক।
“বাঙালির সাফল্য ও ব্যর্থতা” বইটি বইমেলার বাংলা প্রকাশ স্টলে পাওয়া যাচ্ছে। ড. ফয়জুর রহমান জানান, ২০০০ সালে পরমা পাবলিকেশন থেকে তার ৫০০ কপি বই বিক্রি হয়। এরপরে প্রকাশক সেই বইটির আর কোনো সংস্করণ প্রকাশ করেননি। তিনি বলেন, কোনো প্রকাশনার সংস্থা খুঁজে না পেয়ে আমি প্রতিবছর ফটোকপি মেশিন ব্যবহার করে প্রায় ১৫০ থেকে ২০০ কপি বই ব্যক্তিগতভাবে ছাপিয়ে বইমেলায় বিক্রি করেছি।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগ থেকে স্নাতক শেষ করেন তিনি। যুক্তরাজ্যের ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি পিএইচডি করেন।

রানা ভূঁইয়া
দপ্তর সম্পাদক, সেভ দ্য সোসাইটি এন্ড থান্ডার স্টর্ম অ্যাওয়ারনেস ফোরামের

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ