আজ ৮ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২২শে জুন, ২০২২ ইং

তাহিরপুরে ইউএনও দারিদ্র ছাত্রকে কলেজে ভর্তির ব্যবস্থা করেন

বিশেষ প্রতিনিধিঃ তানভীর আহমেদঃ

সুনামগঞ্জ জেলার
তাহিরপুর উপজেলা সদরের লক্ষীপুর গ্রামের দিনমজুর জমির হোসেনের ছেলে মোবারক হোসেন।

চলতি শিক্ষা বর্ষে তাহিরপুর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৪.০০ পেয়ে উত্তীর্ণ হয় মোবারক হোসেন।

চলমান এইচএসসি ভর্তি পরীক্ষায় বাদাঘাট সরকারি কলেজে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পেলেও অর্থের অভাবে ভর্তি হতে পারছিল না এ দিনমজুর পিতার সন্তান।

ভর্তি হতে না পারার মানসিক যন্ত্রনায় মোবারক হোসেন লেখাপড়া ছেড়ে কোন একটা দোকানে কাজ করার সিদ্ধান্ত নেয়।

সন্তানের এমন ভর্তি হতে না পারার বিষয়টি কিছুতেই মেনে নিতে পারছিলেন না মোবারক হোসেনের মা।

তাই তিনি পুত্র সন্তানের লেখাপড়া ঠিক রাখতে দ্বারস্থ হন তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)র কার্যালয়ে।

আজ ২৬ আগস্ট২০২০ইং,বুধবার, বেলা ১১ টায় ইউএনও পদ্মাসন সিংহর নিকট অর্থের অভাবে ভর্তি অনিশ্চিতের বিষয়টি জানান মোবারক হোসেন এর মা।

উক্ত বিষয় টি জানতে পেরে সঙ্গে সঙ্গে মোবারকের ভর্তির জন্য নগদ ৩ হাজার টাকা সহ পরিবারটিতে প্রধানমন্ত্রীর খাদ্য সহায়তা সামগ্রী তুলে দেন ইউএনও পদ্মাসন সিংহ।

ভর্তির টাকা হাতে পেয়ে দরিদ্র ছাত্র মোবারক হোসেন জানিয়েছেন, টাকার অভাবে তার কলেজে পড়ার স্বপ্নটা ভেঙে গিয়েছিল। কিন্তু তাহিরপুরের ইউএনও স্যার আমার ভর্তির ব্যাবস্থা করে দিয়েছেন এবং লেখাপড়া চালিয়ে যাওয়ার জন্য যে কোন ধরনের সহায়তা করার আশ্বাস দিয়েছেন।

তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পদ্মাসন সিংহ বলেন, অর্থের অভাবে একজন ছাত্র লেখাপড়া ছেড়ে দিবে এটা মেনে নেয়া যায় না। তাই তাকে কলেজে ভর্তির ব্যাবস্থা করে দেয়া হয়েছে। পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়ার জন্য এ রকম দরিদ্র শিক্ষার্থীদের আমি সবসময় সহযোগিতা করে যাবো।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ