আজ ১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৬শে জুন, ২০২২ ইং

সরাইলে বৃদ্ধ মাকে হত্যার অভিযোগে ছেলেসহ আটক ৩

 

হাসনাত কাইয়ূম,সরাইল প্রতিনিধি :

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে নিখোঁজের ৪দিন পর ফুলবানু খাতুন (৮৩) নামে এক বৃদ্ধ মায়ের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ফুলবানু সরাইল উপজেলার পাকশিমুল ইউনিয়নের জয়ধরকান্দি গ্রামের মৃত আলাবক্সের স্ত্রী।

আজ বুধবার (২৬ আগস্ট) সকালে জয়ধরকান্দি গ্রামের লোকজনের তথ্যে ফুলবানুর লাশ গ্রামের পাশে হাওরে বন্যার পানিতে ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার করে সরাইল থানার পুলিশ।

এদিকে বৃদ্ধ মাতা ফুলবানুকে তার ছেলে গুলু মিয়া ও পুত্রবধূ রুবিনা বেগম পরিকল্পিতভাবে হত্যার পর লাশ হাওরের পানিতে ফেলে দেয় এমন অভিযোগে গ্রামবাসী তাদের আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। এসময় পুলিশ গুলু মিয়ার এক মেয়েকেও আটক করে থানায় নিয়ে আসে। তবে জয়ধরকান্দি গ্রামের জনপ্রতিনিধি, গ্রামপুলিশ ও গ্রামের বেশকয়েকজন ব্যক্তি অকপটে সাংবাদিকদের কাছে ফুলবানু’র ওপর ছেলে ও পুত্রবধূর নির্মম নির্যাতনের কথা জানালেও সরাইল থানার ওসি বিষয়টি নিয়ে কৌশলে চেপে যাচ্ছেন। ফুলবানুর লাশ উদ্ধারের পর তিনি এ বিষয়ে গণমাধ্যমকে তথ্য দিতেও গড়িমসি করছেন। থানার সরকারি মোবাইল ফোন নম্বরে কল দিলেও তিনি রিসিভ করেননি। তবে ফুলবানুর লাশ উদ্ধারের আগে সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আল মামুন মুহাম্মদ নাজমুল আহমেদ সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, তিনদিন ধরে মহিলা (ফুলবানু) নিখোঁজের ম্যাসেজ দিয়েছিল স্থানীয়রা। আজ (বুধবার) সকালে লাশের খবর পেলাম।

এদিকে জয়ধরকান্দি গ্রামের ইউপি সদস্য মো. সালাউদ্দিন ও গ্রাম পুলিশ রহমত আলীসহ গ্রামবাসী অনেকে জানান, রবিবার (২৩ আগস্ট) থেকে এই লাশ হাওরের পানিতে ভাসছিল। সরাইল থানার সরকারি নাম্বারে ওসিকে ফোন দিলেও তিনি রিসিভ করেননি। পরে অরুয়াইল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই বাপন চক্রবর্তীকে জানানো হয়। কিন্তু পুলিশ এ বিষয়ে কোনো ব্যবস্থাই নেয়নি। রোববার থেকে লাশটি গ্রামের পাশে হাওরে পানিতে ভাসছিল। বিষয়টি নিয়ে ফেসবুকেও অনেকে পোস্ট দেয়। পরে লোকমুখে শুনা যায় ফুলবানু খাতুন ৪দিন যাবত নিখোঁজ, কিন্তু তার ছেলে ও পুত্রবধূ একেবারেই নীরব। সন্দেহ হলে তাদেরকে চাপ দেয়া হয় এবং গ্রামের ইউপি সদস্যের উপস্থিতিতে ছেলে ও পুত্রবধূকে রশি দিয়ে বেঁধে ঘরে আটকিয়ে লোকজন সেই ভাসমান লাশের কাছ যায় এবং এ লাশ ফুলবানু খাতুনের বলে শনাক্তের পর পুলিশকে খবর দেয়া হয়।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ