আজ ২৬শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৯ই মে, ২০২১ ইং

মঠবাড়িয়ায় ট্রিপল মার্ডারের ঘটনায় গ্রেফতার ২

মতিউর রহমান পিরোজপুর প্রতিনিধি:

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় (ট্রিপল মার্ডার) ৩ জন হত্যাকান্ডের ঘটনায় পিরোজপুর গোয়েন্দা শাখা ও মঠবাড়িয়া থানা পুলিশের যৌথ অভিযানে ২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

শনিবার (৮ আগস্ট) সন্ধ্যায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পিরোজপুর জেলা পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান।

এর আগে শনিবার (৮ আগস্ট) বিকেলে মঠবাড়িয়ার ধানিসাফা এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এসময় হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত দেশীয় অস্ত্র ও লুণ্ঠিত মালামাল উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী মঠবাড়িয়ার ধানিসাফা এলাকার তোজাম্বর আলী বিশ্বাসের ছেলে মোঃ অলি বিশ্বাস (৩৮) ও একই এলাকার কাওসার বেপারীর ছেলে রাকিব বেপারী (২০)।

পুলিশ জানায়, গত ৩০ জুলাই উপজেলার ধানিসাফা ইউনিয়নের একই পরিবারের ৩ জন হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। আসামিরা নিহতদের বাড়ি লুট করার উদ্দেশ্যে সিঁদ কেটে কক্ষের ভিতরে প্রবেশ করে। দস্যুরা নিহত আয়নাল হকের পরিচিতজন। তাদের দেখে ফেলায় ফেঁসে যাবার ভয়ে গোটা পরিবারকে হত্যার পরিকল্পনা গ্রহণ করে। পরিকল্পনা অনুযায়ী ৩ বছরের শিশু সন্তানসহ আয়নাল হক ও তার স্ত্রীকে নৃশংসভাবে হত্যা করে তারা।

পুলিশ আরও জানায়, ঘটনার পর থেকে রহস্য উদঘাটনের জন্য মাঠে নামে গোয়েন্দা শাখা ও থানা পুলিশ। পরে ৮ আগস্ট ওই এলাকা থেকে প্রথমে পরিকল্পনাকারী মোঃ অলি বিশ্বাসকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার দেওয়া তথ্যমতে একই এলাকা থেকে হত্যাকারি রাকিব ব্যাপারীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এসময় হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত দেশীয় অস্ত্র ও লুণ্ঠিত মালামাল অলি বিশ্বাসের বাড়ির পাশের একটি পুকুর থেকে উদ্ধার করা হয়।

পিরোজপুরের পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম লিখিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব বিষয় নিশ্চিত করে জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যান্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাসান মোস্তফা স্বপন, থানা অফিসার ইনচার্জ আবু জাফর মোঃ মাসুদুজ্জামান, ওসি তদন্ত আঃ হক সহ পিরোজপুর ডিবি পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তাবৃন্দ।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ