আজ ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৪শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

ব্যাংকের সাড়ে ২২ লাখ টাকা নিয়ে উধাও নৈশ প্রহরী

হিরু কান্তি দাশ 
বান্দরবান সদর  প্রতিনিধি:
বান্দরবানের আলীকদমে ‘আমার বাড়ি, আমার খামার’ প্রকল্পসহ প্রধানমন্ত্রীর দশটি বিশেষ প্রকল্পের (পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের) সাড়ে ২২ লাখ টাকা নিয়ে উধাও নৈশ প্রহরী। রবিবার (২৬ জুলাই) দুপুরের পর বিষয়টি জানতে পারেন আলীকদম উপজেলা আমার বাড়ি, আমার খামার প্রকল্পের সমন্বয়কারী ফেরদৌসী আক্তার ও একাউন্টস শরিফুর রহমান। প্রকল্প অফিস, ব্যাংক ও গ্রাহকরা জানান, আলীকদম উপজেলা আমার বাড়ি, আমার খামার প্রকল্পসহ প্রধানমন্ত্রীর দশটি বিশেষ প্রকল্পের (পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের) লেনদেন হয় সোনালী ব্যাংকের আলীকদম শাখায়। গ্রাহকদের ঋণ দিতে প্রকল্পের সাড়ে ২২ লাখ টাকা উত্তোলন করে আনতে প্রতিনিধি হিসাবে সোনালী ব্যাংকের শাখায় পাঠানো হয় নৈশ প্রহরী উছাই সুই প্রু মারমা (৩০) কে। ব্যাংক থেকে প্রকল্পের টাকা উত্তোলন করে টাকা নিয়ে উধাও হয়ে গেছেন নৈশ প্রহরী। দীর্ঘক্ষণ পরও ফিরে না আসায় খোঁজাখুঁজির পর অর্থ নিয়ে পালিয়ে যাবার বিষয়টি নিশ্চিত হন সংশ্লিষ্টরা। আমার বাড়ি, আমার খামার প্রকল্পের সমন্বয়কারী ফেরদৌসী আক্তার এবং ব্যাংকের একাউন্টস শরিফুর রহমান দুজনের অবহেলায় এই ঘটনা ঘটেছে দাবি গ্রাহকদের। এ ঘটনায় আলীকদম থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। নৈশ প্রহরীর বাড়ি লামা উপজেলার গজালিয়া ইউনিয়নের তুলাতলী মারমা পাড়ায়। প্রকল্পের উপজেলা সমন্বয়কারী ফেরদৌসী আক্তার  বলেন, ‘সাড়ে ২২ লাখ টাকা নিয়ে নৈশ প্রহরী উধাও হওয়ার ঘটনা সত্য। আমরা থানায় অভিযোগ করেছি। টাকা তোলার দায়িত্ব নৈশ প্রহরীকে দিলেও তার সঙ্গে মাঠকর্মী সাইদুল হাসানকে পাঠানো হয়। কিন্তু মাঠকর্মী ব্যাংক থেকে বেড়িয়ে ফিল্ডে যাবার সুযোগে পালিয়ে গেছে নৈশ প্রহরী।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ