আজ ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৪শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

বিশেষ ব্যবস্থায় হাজীগঞ্জ ঐতিহাসিক বড় মসজিদে ঈদুল আযহার ৩টি জামায়াত হচ্ছে

 

মোঃ হাসান :

দেশে আগামি ১ আগস্ট পালিত হবে পবিত্র ঈদুল আজহা । বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতিতে দেশের কোনো ঈদগাহে ঈদের জামাত হবে না। এর পরিবর্তে বিশেষ ব্যবস্থায় মসজিদে মসজিদে জামাত অনুষ্ঠিত হবে।তাই এবার চাঁদপুর জেলার সর্ববৃহৎ,প্রাচীন ও ঐতিহাসিক হাজীগঞ্জ বড় জামে মসজিদে বিশেষ ব্যবস্থায় ঈদুল আযহার ৩টি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এতে নেয়া হয়েছে ধর্মমন্ত্রণালয়ের নিদের্শিত বিশেষ ব্যবস্থাসমূহ ।হাজীগঞ্জ ঐতিহাসিক বড় জামে মসজিদ ব্যবস্থাপনার ভারপ্রাপ্ত মোতোয়াল্লি প্রিন্স সাকিল আহমেদ চাঁদপুর টাইমসকে বুধবার ২২ জুলাই বেলা সাড়ে
১১ টায় ফোনে জানান।হাজীগঞ্জ ঐতিহাসিক বড় জামে মসজিদ ব্যবস্থাপনা সূত্রে জানা গেছে, ঈদুল আযহার নামাজ আদায়ে প্রয়োজনীয় সব রকম ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। প্রথমটি হবে সকাল ৬ টায়, দ্বিতীয়টি হবে সকাল ৮ টায় এবং তৃতীয় জামাত অনুষ্ঠিত হবে বেলা ১০ টায় ।তা’ছাড়াও বিশেষ ট্রাফিক ব্যবস্থা, আইন-শৃংখলা রক্ষায় হাজীগঞ্জ পৌরসভা, থানা পুলিশ ও প্রায় শতাধিক স্বেচ্ছাসেবক থাকবে ।চাঁদপুরের ঐতিহাসিক হাজীগঞ্জ বড় জামে মসজিদে বিশেষ ব্যবস্থাগ্রহণ সম্পর্কে মসজিদ ব্যবস্থাপনা কমিটির ভারপ্রাপ্ত মোতোয়াল্লি প্রিন্স সাকিল আহমেদ বলেন, ‘ ধর্ম মন্ত্রণালয়ের নির্দেশিত বর্তমান বৈশ্বিক করোনা সংকটের কারণে বিশেষ ব্যবস্থায় মুসল্লিদের নামাজ আদায়ের ব্যবস্থা ব্যবস্থা থাকবে । মসুল্রিগণ প্রথমেই বডি স্প্রে’র মাধ্যমে মসজিদের ভেতরে প্রবেশ করা,সাবান দিয়ে হাত ধৌত বা ওজু করে মসজিদে প্রবেশ করার ব্যবস্থা,সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কাতারবিান্দ হওয়া ও বাধ্যতামূলক মাক্স ব্যবহার করা। মুসল্লিদের ওজুর জন্য পর্যাপ্ত পানি,সাবান, বিদ্যুৎ ব্যবস্থা ও নিরাপত্তার জন্য হাজিগঞ্জ থানা পুলিশের সার্বিক সহায়তা কামনা ও পেীরসতার সহযোগিতা কামনা করা হয়েছে ।’তিনি আরো বলেন, ‘নামাজের সময় নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ নিশ্চিত রাখার বিষয়ে এরইমধ্যে তিনি পল্লীবিদ্যুৎ বিভাগ হাজীগঞ্জকে এবং পৌর সভার সংশ্লিষ্ঠদের সহায়তা প্রদানের অনুরোধ জানিয়েছেন।’বয়োবৃদ্ধগণ ও কেউ অসুস্থ হলে মসজিদে না এস নিজ নিজ বাসায় বা বাড়িতে নামাজ আদায় করা যাবে বলে তিনি জানান।প্রসঙ্গত, হাজীগঞ্জ ঐতিহাসিক বড় মসজিদ কর্তৃপক্ষ ঈদের নামাজ আদায়ে মুসল্লিদের স্বার্থে প্রতিবছরই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে আসছে। গৃহীত ব্যবস্থার মধ্যে রয়েছে প্রশাসনিক কর্মকর্তা,পৌর মেয়র,চেয়ারম্যান,ভাইস চেয়ারম্যানসহ অন্যান্য জনপ্রতিনিধি ও ব্যবসায়ী গণ্যমান্য ব্যক্তিদের আমন্ত্রণ, নিরাপত্তার জন্য পর্যাপ্ত আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর উপস্থিতি নিশ্চিতকরণ, উপযোগী পরিবেশ সৃষ্টি, পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা রাখতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ,মসজিদ আঙিনায় সামিয়ানা টানানো, মেডিক্যাল টীম, প্রয়োজনীয় স্বেচ্ছাসেবকদল গঠন, হাজীগঞ্জ বাজারের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া কুমিল্লা মহাসড়কে নির্ধারিত সময় পর্যন্ত সকল প্রকার যানবাহন নিয়ন্ত্রণ রাখতে ট্রাফিক ব্যবস্থা নিশ্চিত ও মোকাব্বের নিয়োগ ইত্যাদি পদক্ষেপ নেয়া হয় । নামাজ আদায়ের লক্ষ্যে মসজিদ কর্তৃপক্ষ সুন্দর ও সুষ্ঠ পরিবেশ বজায় রাখতে সবরকম ব্যবস্থা নিয়ে থাকে। সংশিষ্ট সকলের দায়িত্ব বন্টন করা হয় ।এদিকে মঙ্গলবার ২১ জুলাই ইসলামিক ফাউন্ডেশনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামি ১০ জিলহজ মোতাবেক ১ আগস্ট শনিবার সারা দেশে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে ঈদুল আযহা উদযাপিত হবে। ঈদুল আজহা উপলক্ষে প্রতি বছরের মতো এবার বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদসহ দেশের সকল মসজিদে ঈদের নামাজের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ