আজ ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

নওগাঁয় বন্যার কারণে সবজিসহ বেড়েছে নিত্যপণ্যের দাম 

 

মোঃ ফিরোজ হোসাইন
নওগাঁ প্রতিনিধিঃ

নওগাঁ আত্রাইয়ে বন্যা আর বৃষ্টির কারণে উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজারগুলোতে কাঁচা মরিচসহ সবজির দাম বেড়ে গেছে। শুধু তা-ই নয়, নতুন করে দাম বেড়েছে পেঁয়াজের। চাল ও ডাল বিক্রি হচ্ছে বাড়তি দামে।

বন্যার কারণে বিভিন্ন এলাকায় বন্যানিয়ন্ত্রন বাঁধ ভেঙে বিস্তৃর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার সবজি বাজার গুলোতে এমন উর্ধগতি। জিনিসপত্রের দাম বেড়ে যাওয়ার কারণে সীমিত আয়ের মানুষরা পড়েছে মহাবিপদে। বেড়েছে দুর্ভোগ।

সাহেবগঞ্জ বাজার সবজি বিক্রেতারা আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বন্যা ও অতি বৃষ্টির কারণে কাঁচা মরিচসহ সবজির ক্ষেত ডুবে গেছে, যে কারণে দামও বেড়ে গেছে।

অপর এক ব্যবসায়ী জলিল বলেন, আমরা পাইকারী সবজি কিনতে পার্শ্ববর্তী উপজেলার সিকদার,তাহেরপুর হাটে যাই। যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ায় ও সেই সাথে পরিবহন খরচ বেশি পরায় বেশি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে।

মালিপুকুর গ্রামের বাসিন্দা রিয়াজুর রহমান বলেন, কয়েক দিন আগে ৪০ টাকা কেজির কাঁচা মরিচ কিনতে হয়েছে ১৮০ টাকা কেজি দরে। এছাড়া সব ধরনের সবজির ক্ষেত্রেই কেজিতে ১০ থেকে ২০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। পেঁয়াজের দাম আগের চেয়ে কেজিতে বেড়েছে ১০ টাকার মতো।

উপজেলার কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা যায়, ২৫০ গ্রাম কাঁচা মরিচের দাম এখন ৫০ টাকা। যদিও কিছু দিন আগে এক কেজি কাঁচা মরিচের দাম ছিল ৪০ টাকা।

আজ সকালে উপজেলা কাশিয়াবাড়ী হাট ঘুরে দেখা যায় বেগুন বিক্রি হয়েছে প্রতিকেজি ৫০ টাকা, ঝিঙে ৬০ টাকা, লাউ প্রতিটি ৪০ টাকা এবং জালি কুমড়া প্রতিটি ৩০ টাকা। বরবটির কেজি ৫০-৬০ টাকা। পটল ৩০-৫০ টাকা, করলা ৬০-৮০ টাকা, কাঁকরোল ৫০-৬০ টাকা, ঢেঁড়স ৩০-৫০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। আলুর কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০-৪৫ টাকা। এদিকে মোটা, চিকন ও মাঝারি এই তিন ধরনের চালের দাম কেজি প্রতি ৫/৬ বেড়েছে। বেড়েছে সয়াবিন তেল ও মসলার দাম।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ