আজ ৩রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জানুয়ারি, ২০২১ ইং

সাভারে রিসোর্টে মদ্যপান অবস্থায় ৭ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকার সাভারে অসামাজিক কার্যকালাপে লিপ্ত থাকার অভিযোগে মদ্যপান অবস্থায় বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া সাত শিক্ষার্থীকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার(৪ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় অপরাধীদের অভয়ারণ্য বলে খ্যাত উচ্চ আদালত থেকে অবৈধ ঘোষনাকৃত মধুমতি মডেল টাউনের জিওন রির্সোট থেকে তাদেরকে আটক করেছে সাভার মডেল থানা পুলিশ।

আটক শিক্ষার্থীদের মধ্যে চারজন ছেলে ও তিনজন মেয়ে শিক্ষার্থী রয়েছেন। তারা বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী বলে জানালেও তাদের নাম পরিচয় দিতে অপরগতা প্রকাশ করেন পুলিশ সদস্যরা। বর্তমানে ওই শিক্ষার্থীদের সাভার মডেল থানার হাজত খানায় রাখা রয়েছে।
থানা পুলিশ জানায়, অবৈধ ঘোষিত মধুমতি মডেল টাউনের ভিতরের জিওন রির্সোটের মালিক দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন উঠতি বয়সী শিক্ষার্থীদের দিয়ে অসামাজিক কার্যকালাপ করাচ্ছেন এমন অভিযোগের ভিত্তিতে গোপন সংবাদ পেয়ে মঙ্গলবার বিকেলে ওই রির্সোটে অভিযান চালানো হয়। অভিযান চলার সময় মদ্যপান অবস্থায় অসামাজিক কার্যকলাপে লিপ্ত থাকায় ঢাকার বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাত শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়।
পুলিশ অভিযান চালানোর পরেও সরেজমিনে ওই রির্সোটে গিয়ে দেখা যায় মূল ফটকে তালা লাগানো থাকলেও ভিতরে রিসোর্টের মালিক কর্মচারীরা পুনরায় অসামাজিক কার্যকালাপ শুরু করে দিয়েছেন। রিসোটটির চার দিকে সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো রয়েছে যার মাধ্যমে কর্তৃপক্ষ ভিতরে পুলিশ কিংবা আইন শৃঙ্খলাবাহীনির সদস্যসহ বহিরাগত লোকজনের গতিবিধির উপর নজর রাখে। কখনও পরিস্থিতি বেগতিক দেখলে পিছনের দিকে থাকা গোপন দরজা দিয়ে সড়ে পড়ে সেখানকার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।
স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে মধুমতি মডেল টাউনের ভিতরে বিভিন্ন রির্সোটে অসামাজিক কার্যকালাপ ও বিভিন্ন অপরাধমূলক কাজ হচ্ছে । বর্তমানে মধুমতি মডেল টাউনে পুলিশের নজরদারী না থাকায় এটি অপরাধীদের অভয়ারন্য হয়ে পড়েছে। এ সুযোগে এখানকার বিভিন্ন রির্সোটে নিয়মিত মাদক সেবনসহ নানা রকমের অপরাধমূলক কর্মকান্ড সংগঠিত করছে উচ্চ বিত্ত ঘরের ছেলে-মেয়েরা। অবিলম্বে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা না হলে যুব সমাজ ধ্বংসের দিকে চলে যাবে।
সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুজন শিকদার বলেন, আটক শিক্ষার্থীদের সাভার মডেল থানার হাজত খানায় রাখা রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। পুলিশ আরও জানায় তাদের অভিযান চলমান থাকবে ওই সব রিসোর্ট গুলিতে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ