আজ ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং

মঠবাড়ীয়ায় সাবেক নারী ভাইস চেয়ারম্যানকে হত্যার চেষ্টা

 

নিজস্ব প্রতিবেদক :

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক নারী ভাইস চেয়ারম্যান ও ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রমা রানী মজুমদার শোভা (৫৫) কে কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় অভিযুক্ত প্রতিপক্ষ বাবা ও ছেলের বিরুদ্ধে থানায় হত্যা চেষ্টার মামলা দায়ের হয়েছে। আহত শোভা রানী বাদী হয়ে শনিবার দিনগত রাতে অভিযুক্ত ইসমাইল হাওলাদার ও বাবা রত্তন হাওলাদারকে আসামী করে মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় অজ্ঞাত আরও দুই জনকে আসামী করা হয়েছে।


বৃহস্পতিবার দিনগত রাত নয়টার দিকে মঠবাড়িয়া পৌর শহরের তিন নম্বর দক্ষিণ বন্দর স্লুইজগেট মহল্লার বাস ভবনে নারী নেত্রী শোভা রানী এ হামলার শিকার হয়। গুরুতর অবস্থায় চেয়ারম্যানকে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তার মাথায় ৬টি স্থানে ধারালো অস্ত্রের কোপে ক্ষত হয়েছে।
সীমানা প্রাচীর নিয়ে বিরোধের জের ধরে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে ভূক্তভোগি পরিবার সূত্রে জানাগেছে।
অভিযুক্ত হামলাকারি ইসমাইল হাওলাদার একই মহল্লার রত্তন হাওলাদার এর ছেলে। সে সম্প্রতি একটি মামলায় জামিনে বেরিয়ে এসে সাবেক নারী ভাইস চেয়ারম্যানের ওপর এ সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটায়।
থানা ও হাসপাতাল সূত্রে জানাগেছে, মঠবাড়িয়া পৌর শহরের দক্ষিণবন্দর স্লুইজগেট মহল্লার বাসিন্দা শিক্ষক স্বপন কুমার মজুমদার এর স্ত্রী উপজেলা পরিষদের সাবেক নারী ভাইস চেয়ারম্যান ও ওয়ার্কার্স পার্টিও সভাপতি রমা রানী মজুমদার শোভার সাথে প্রতিবেশী রত্তন হাওলাদার এর ছেলে মাদকসেবি ইসমাইল হাওলাদার এর জমির সীমানা প্রাচীর নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিলো। সম্প্রতি সে একটি মামলায় জেল হাজতে যায়।
জেল থেকে জামিনে মুক্ত হয়ে বাড়িতে এসে প্রতিবেশী নারী ভাইস চেয়ারম্যানকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে। বৃহস্পতিবার দিনগত রাত নয়টার দিকে বাসায় কেউ না থাকায় প্রতিপক্ষ ইসমাইল ধারালো অস্ত্র নিয়ে রমা রানীর ওপর অতর্কিতে হামলা চালিয়ে হত্যা চেষ্টা চালায়। এসময় তিনি বাসার পাশের রান্নাঘরে রান্না নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন।
ইসমাইল ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে মাথায় এলোপাতারি কোপানো শুরু করে। তার আর্ত চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এলে হামলাকারি ইসমাইল পালিয়ে য়ায়। পরে তাকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভতি করা হয়।
মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত সার্জন ডা. রাকিবুর রহমান বলেন, নারী ভাইস চেয়ারম্যানের মাথার ৬টি স্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। তবে তিনি কিছুটা আশংকামুক্ত । তিনি এখনও চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
এদিকে নারী নেত্রী রমা রানী শোভার ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদ ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন পিরোজপুর জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি খান মো. রুস্তুম আলী, কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি দিলীপ কুমার পাইক, জাসদ(ইনু) পিরোজপুর জেলা কমিটির চিত্ত রঞ্জন বিশ্বাস, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক নিমাই মণ্ডল ও মঠবাড়িয়া উদীচী শিল্পী গোষ্ঠির সভাপতি শিবু সাওজাল ।
এ বিষয়ে মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাসুদুজ্জামান মিলু ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আহত নারী ভাইস চেয়ারম্যান বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেছেন।
অভিযুক্ত আসামীরা ঘটনার পর থেকে পলাতক। তাদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ