আজ ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং

আখাউড়ায় পূর্ব বিরোধের জেরে যুবককে গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতন

 

প্রতিনিধি আখাউড়া
মো সুজন হাজারী :

 

সকাল ১০ টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আখাউড়া উপজেলার দক্ষিণ ইউনিয়নের কুড়িপাইকা গ্রামে এক যুবককে গাছের সাথে বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের হোলি খেলায় মেতে উঠেছে অত্র এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীসহ কতিপয় সন্ত্রাসীরা৷ ভোক্তভূগি যুবকের নাম, নয়ন মিয়া (৩২)৷ তার পিতার নাম, শহিদ মিয়া, তার বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সুহিলপুর গ্রামে৷ সে কিছুদিন আগে কুড়িপাইকা গ্রামে নিকটাত্বীয়ের বাসায় বেড়াতে এসেছিল ৷

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীর বিবরণে জানা যায়, হামলাকারিরা একই গ্রামের মাদকের গড ফাদার এবং কিছুদিন আগে পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হওয়া কাপ্তান মিয়ার আত্মীয় স্বজন ও সহযোগী সদস্য৷ কাপ্তান ধারণা করছে, তার পুলিশের হাতে গ্রেপ্তারের বিষয়ে নয়নের হাত আছে, তাই সে সোর্স দিয়ে নয়নকে পাগলের মত খুঁজতে থাকে৷ অবশেষে তাকে পেয়ে সন্ত্রাসী বানিয়ে নির্যাতন করে পুলিশের হাতে ধরিয়ে দেয়৷ পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে আখাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে হাজতে নিয়ে যায়৷
ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত ব্যক্তিরা হচ্ছেন ,
১. সিয়াম (২৬) পিতা- কাপ্তান মিয়া
২. আশীষ উরফে চাঁদনী (৩০) পিতা- তিতন মিয়া৷
৩. নাইম (২৬) পিতা- রমজান মিয়া৷
৪. জিদান (২৮), নান্টু (২৫) কালু (৩১), সর্ব পিতা- জমসিদ মিয়া৷
৫. বাবু ( ২৮ ) পিতা- রমজান মিয়া৷
৬. সজু (২৮), কায়কোবাদ (২৪)
কাওছার ( ২০) সর্ব পিতা- আব্দুল আজিজ৷

এ ব্যপারে জানতে চাইলে আখাউড়া উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কাশেম ভূঁইয়া বলেন , তিনি এ ঘটনাটি শুনেছেন ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন ৷
এ ব্যপারে নৃশংস হামলার শিকার নয়নের পিতা শহিদ মিয়া বাদি হয়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আখাউড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ৷
জানতে চাইলে আখাউড়া থানার এস আই, নিতাই চন্দ্র দাস বলেন, আমি ঘটনা জানতে পেরে নয়নকে উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়েছি৷ সে এখন আমাদের কাস্টডিটে নিরাপদে আছে৷ আসামীদের ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে৷

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ