আজ ৩রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জুন, ২০২১ ইং

আশুলিয়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ২ হাজার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন, আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকার আশুলিয়ায় ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে ২ হাজার বাসাবাড়ীর অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন সহ একটি কারখানাকে ১ লক্ষ টাকা জরিমানা এবং অবৈধ সংযোগ প্রদান করার সময় ধৃত ২ জনকে এক মাসের কারাদন্ড প্রদান করেছেন। গতকাল মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) আশুলিয়ার ঘোষবাগ এলাকার টি.এ.কে কেমিক্যালস এর গলি এবং পূর্বপাড়া এলাকায় আশুলিয়া রাজস্ব সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাজওয়ার আকরাম সাকাপি ইবনে সাজ্জাদ এর নেতৃত্বে সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত এই অভিযান পরিচালিত হয়।

এর আগে, গত সোমবার (২০ জানুয়ারি) গভীর রাতে আশুলিয়ার ঘোষবাগে টি. এ.কে কেমিক্যাল রোড সংলগ্ন তানভির আহম্মেদ এর মালিকানাধীন নিজস্ব বাউন্ডারি ওয়াল ছিদ্র করে অবৈধ গ্যাস সংযোগ এর পাইপ বসানোর সময় তাদের হাতেনাতে আটক করে ওই বাড়ির কেয়ারটেকার ও নৈশ প্রহরী।

আটককৃতরা হলেন- মানিক ওরফে আলাল (৪০), তিনি শেরপুর জেলা সদরের রূপাগোরা এলাকার কাশেম আলীর ছেলে। অপরজন ফিরোজ (২৪), তিনি নওগাঁ জেলা সদরের সিংবাছা এলাকার বিল্লাল হোসেনের ছেলে বলে জানা যায়।

পরে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ওই দুইজনকে বাংলাদেশ গ্যাস আইন ২০১০ এর আলোকে এক মাসের কারাদন্ড প্রদান করেন।

এছাড়া, স্থানীয় একটি কারখানায় অবৈধ গ্যাস সংযোগ ব্যবহার করার কারণে বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ওই কারখানার মালিককে ১লক্ষ টাকা জরিমানা প্রদান করেন।

এব্যাপারে গণমাধ্যমকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাজওয়ার আকরাম সাকাপি ইবনে সাজ্জাদ জানান, আজ সকাল থেকে শুরু করে বিকাল পর্যন্ত আশুলিয়ার ঘোষবাগ এলাকায় অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্নকরণ অভিযান পরিচালিত করেছি। এসময় দুইজন অবৈধ সংযোগ প্রদানকারী কে গ্যাস আইনে উভয়কে এক মাসের কারদন্ড প্রদান করেছি এবং একটি কারখানাকে অবৈধ সংযোগ গ্রহন করার কারণে এক লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

অভিযান চলাকালে এসময় উপস্থিত ছিলেন- তিতাসের সাভার জোনাল বিপনন অফিসের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী আবু সাদাত মোঃ সায়েম, উপ-ব্যবস্থাপক আমিরুল ইসলাম, উপ-ব্যবস্থাপক আব্দুল মান্নান, সহ-ব্যবস্থাপক ইদ্রিস আলী, সহ-ব্যবস্থাপক সাকিব বিন আব্দুল হান্নান, সহকারীর প্রকৌশলী নাজমুল হাসান নয়ন, সহ-কর্মকর্তা এহসানুল হক প্রমুখ সহ তিতাসের কারিগরি টিমের শ্রমিকগণ।

তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড এর সাভার জোনাল বিপনন অফিস (জোবিঅ) এর ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী আবু সাদাত মোঃ সায়েম জানান, আজ সকাল থেকে শুরু হওয়া অভিযানে সাভারের আশুলিয়ার ঘোষবাগ এলাকার টি.এ.কে কেমিক্যালস এর গলি এবং পূর্বপাড়া এলাকার গলিতে আমাদের বৈধ বিতরণ ‘হাই-প্রেসার লাইন’ যা শুধুমাত্র শিল্প সংযোগে ব্যবহৃত হয়, সেখান থেকে আবাসিক সংযোগ হিসেবে অবৈধভাবে ২ ইঞ্চি ও ১ ইঞ্চি আনুমানিক প্রায় ৩ কিলোমিটার ব্যপী পাইপ ব্যবহার করে সংযোগ নেয়া হয়েছে। এখানে মোট ৩টা ‘সোর্স পয়েন্ট’ থেকে অবৈধ সংযোগ প্রদানকারী সংযোগ নিয়েছে। আমরা এই সম্পূর্ণ পাইপলাইন তুলে ফেলার চেষ্টা করেছি। এতে আনুমানিক প্রায় ২ হাজার বাসাবাড়িতে নেয়া অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে।

তিনি আরও জানান, গতকাল সোমবার দিবাগত মধ্যরাতে একটা প্রতিষ্ঠানের আঙ্গিনার ভিতর দিয়ে অবৈধভাবে পাইপলাইন নিয়ে সংযোগ প্রদানের সময় ২ জন সংযোগ প্রদানকারী চক্রের সদস্যকে হাতেনাতে ধরা হয়েছে। আজ ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাদের উভয়কে এক মাসের কারাদন্ড প্রদান করেছেন।

প্রসঙ্গত, অভিযান চলাকালে ওই এলাকায় যেকোনো প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক রাকিবুল হাসান এর নেতৃত্বে বিপুল সংখ্যক পুলিশ সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ